শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৬:৩৮ অপরাহ্ন

রাসেল মাহমুদ; বায়ান্ন, খুলনা

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩২০ বার দেখেছে
রাসেল মাহমুদ, ছবি: শ্রুতিকথা

শ্রুতিকথাঃ আমরা আবৃত্তি কর্মীদের প্রোফাইল তুলে ধরছি । এ যাত্রায় প্রথমেই থাকছেন খুলনার বি.এল.  কলেজের “বায়ান্ন” আবৃত্তি সংগঠনের সভাপতি,তরুণ সংগঠক রাসেল মাহমুদ ।

রাসেল মাহমুদ ।

পিতাঃ মোঃ আসাদুজ্জামান শেখ

মাতাঃ মোসম্মৎ সালেহা খানম

জন্মস্থানঃ বাগেরহাট জেলার মোড়েলগঞ্জ থানায়

প্রাথমিক বিদ্যালয়ঃ এ.পি.কালিকাবাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

মাধ্যমিকঃ বলইবুনিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়

উচ্চমাধ্যমিকঃ সরকারি মাজিদ মেমোরিয়াল সিটি কলেজ,খুলনা

স্নাতকঃ  সরকারি ব্রজলাল কলেজ খুলনা।

 

রাসেল মাহমুদ । বর্তমানে বি এল কলেজ খুলনা, আবৃত্তি সংগঠন “বায়ান্ন”র সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ।  এছাড়া তিনি  বাংলাদেশ বেতার খুলনায় তালিকাভুক্ত নাট্যশিল্পী।

আবৃত্তি চর্চা শুরুঃ তিনি ছোট বেলা থেকে কবিতা আবৃত্তি করতেন  । বাবা মায়ের কাছেই তার কবিতা আবৃত্তি চর্চা শুরু হয় । তাদের হাত ধরেই  রাসেল মাহমুদ এর আবৃত্তির হাতেখড়ি । তবে সেটা ছিল অসাংগঠানিক ভাবে ।

তিনি বলেন, ২০১৬ সালে আবৃত্তি সংগঠন “বায়ান্ন” এর সাথে যুক্ত হই এবং সেখানে যাওয়ার পর বুঝতে শিখেছি আবৃত্তি আসলে কি!কবিতার প্রতিটি শব্দ যে হৃদয়ের কথা বলে তখন বুঝতে শেখা। আর আবৃত্তি সংগঠন “বায়ান্”তে যুক্ত হবার পর তিন জন মানুষের সাথে পরিচয় হয় ফাতেমা-তুজ-জোহরা টুম্পা, সুমনা সিরাজ সুমি এবং তানজির সৌরভ,  এই মানুষগুলোর হাত ধরেই কবিতার পথে হাটা এবং এখনো হেটে চলা।

কবিতা নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাঃ তিনি কবিতা নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার বিষয়ে বলেন,  “আমি মনে করি আবৃত্তি সকল বাচিক শিল্পের জননী। আবৃত্তি জীবনের সাথে জরিয়ে গেছে, এই আবৃত্তির আলোয় সামনের জীবনকে আলোকিত করতে চাই।আবৃত্তি দিয়ে মানুষের হৃদয়ের কাছে পৌঁছাতে চাই।এবং একজন সংস্কৃতিকর্মী হয়ে সুস্থ সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে আবৃত্তি চর্চাকে বিকশিত করতে চাই।

শ্রুতিকথা/ সোহেল মুন্সী 

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো